ক্লাব ফুটবল চেন্নাইনকে হারিয়ে দূর্দান্ত জয় পেয়েছে স্বাগতিক আবাহনী

চেন্নাইনকে হারিয়ে দূর্দান্ত জয় পেয়েছে স্বাগতিক আবাহনী

14
0

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ‘ই’ গ্রুপের খেলায় মুখোমুখি হয় স্বাগতিক আবাহনী লিমিটেড ও চেন্নাইন। ভারতের চেন্নাইনকে ৩-২ গোলে পরাজিত করে জয় পেয়েছে স্বাগতিক আবাহনী।

প্রথম লেগে প্রতিপক্ষের মাঠে আত্মঘাতী গোলে ১-০ ব্যবধানে পরাজিত হয়েছিল আবাহনী লিমিটেড।

ম্যাচের শুরুতেই এগিয়ে যায় সফরকারী চেন্নাইন। ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটে বাঁ দিক থেকে সতীর্থের কর্নারে লাফিয়ে উঠেও ডিফেন্ডারদের কেউ মাথা ছোঁয়াতে পারেননি। বল গিয়ে পড়ে দূরের পোস্টে থাকা সি কে ভিনেথের পায়ে; ৩০ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডের প্লেসিং শটে বল জালে পাঠিয়ে গোল আদায় করে নেন।

প্রথমার্ধের বাকিটা সময় আর কোনো গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। আর তাতে করে ১-০ গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যায় স্বাগতিক আবাহনী লিমিটেড।

দ্বিতীয়ার্ধে গোল শোধে মরিয়া হয়ে একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে আবাহনী। ম্যাচের ৬৪ মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায় স্বাগতিক আবাহনী। আফগানিস্তানের ডিফেন্ডার মাসিহ সাইঘানির লম্বা করে বাড়ানো বল বুক দিয়ে নামিয়ে ডান পায়ের নিখুঁত টোকায় বল জালে জড়িয়ে দেন বেলফোর্ট।

এরপর ম্যাচের ৬৯ মিনিটে গোল করে আবাহনীকে ২-১ গোলে এগিয়ে নেন সাইঘানি। ডান দিকের ডি বক্সের একটু ওপর থেকে বাঁ পায়ের জোরালো ফ্রি-কিকে গোল করেন এই ফরোয়ার্ড।

রক্ষণের ভুলের সুযোগ কাজে লাগিয়ে আইজ্যাক লক্ষ্যভেদ করে ম্যাচের ৭৪ মিনিটে। এরপর ম্যাচের ৮৪ মিনিটে গোল করে আবারও এগিয়ে যায় আবাহনী। রায়হানের লম্বা থ্রো ইন প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডার ফেরানোর পর ডি-বক্সের ভেতর থেকে জোরালো শটে জাল খুঁজে নেন মামুনুল।

ম্যাচের বাকিটা সময় আর কোনো গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। ফলে ৩-২ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিক আবাহনী লিমিটেড।

এ জয়ে গ্রুপ পর্বের বাধা পেরিয়ে যাওয়ার আশা বাঁচিয়ে রাখলো আবাহনী। চার ম্যাচে দুই জয় ও এক ড্রয়ে ৭ পয়েন্ট তাদের। সমান ৭ পয়েন্ট চেন্নাইন এফসিরও।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here