আন্তর্জাতিক ফুটবল মেসির ৬ষ্ঠ ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার

মেসির ৬ষ্ঠ ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার

12
0

ভার্জিল ফন ডাইক ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে পেছনে ফেলে ফিফা দ্যা বেস্ট প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার অ্যাওয়ার্ড উঠলো আর্জেন্টিনার বার্সেলোনা তারকা লিওনেল মেসির হাতে। ষষ্ঠবারের মতো ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়ে আরও একবার চীরপ্রতিদ্বন্দ্বি রোনালদোকে ছাড়িয়ে গেলেন এই ফুটবল জাদুকর।

কে হচ্ছেন ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলার, সেটা জানতেই বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীদের দৃষ্টি আটকে ছিলো মিলানের অপেরা হাউস লা স্কালায়। সংক্ষিপ্ত তালিকায় থাকা সবাই উপস্থিত ছিলেন অনুষ্ঠানে। কিন্তু গতবারের মতো এবারও রোনালদোর দেখা মেলেনি। ততক্ষনে আর বুঝতে বাকি নেই বেস্ট প্লেয়ারের মহারন থেকে ছিটকে গেছেন তিনি।

কাঙ্খিত নাম ঘোষণার জন্য মঞ্চে উঠলেন ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো। বেস্ট প্লেয়ার অ্যাওয়ার্ডের জন্য অন্যতম দাবিদার ফেভারিট ডাচ ডিফেন্ডার ভার্জিল ফন ডাইক। কেননা কয়েকদিন আগে উয়েফা বর্ষসেরার পুরস্কার জেতেন তিনি। একই সারিতে স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে বর্ষসেরার নামটি শোনার জন্য অপক্ষোয় বসে মেসেও।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে না পারলেও, গত মৌসুমে বলতে গেলে একাই বার্সার ঘরে এনে দিয়েছেন লিগ শিরোপা। দেশ ও ক্লাবের হয়ে ৫৮ ম্যাচে করেছেন ৫৪ গোল। আর তাতেই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি রোনালদোকে ছাপিয়ে, রেকর্ড ষষ্ঠবারের মতো শ্রেষ্ঠত্বের মুকুটে আরেকটি পালক যোগ করলেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার।

২০১৮ সালে লিভারপুলকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতানোর পুরস্কার পেয়েছেন পিছনের কারিগর ইয়ুর্গেন ক্লপ। ম্যানচেস্টার সিটির কোচ পেপ গার্দিওলা ও টটেনহাম হটস্পারের মারিসিও পচেত্তিনোকে হারিয়ে সেরা গুরু নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

উয়েফা বর্ষসেরা গোলরক্ষকের পুরস্কারের পর ফিফার পুরস্কারও উঠেছে ব্রাজিলের লিভারপুল গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকারের হাতে।

এদিকে নারীদের বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ফরোয়ার্ড মেগান র‌্যাপিনো। ফিফা নারী বিশ্বকাপে যুক্তরাষ্ট্রকে শিরোপা জেতাতে দারুন ভুমিকা রেখেছেন তিনি। সর্বোচ্চ গোল করে গোল্ডেন বলও জিতেছিলেন ৩৪ বছরের ইউএস অধিনায়ক। তাদেরই গুরু জিল এলিস জিতেছেন নারীদের বর্ষসেরা কোচের তকমা।

ফিফার ফিফপ্রো পুরুষ ও নারী দলে জায়গা পাওয়া ফুটবলারদের নামও ঘোষণা হয় অনুষ্ঠানে। বর্ষসেরা একাদশে, মেসি, এমবাপ্পের সঙ্গে বেস্ট ফরোয়ার্ড হিসেবে আছেন রোনালদোও।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here